1. dainikajkermeghna@gmail.com : Saiful :
  2. alauddinislam015@gmail.com : মো: আলাউদ্দিন : মো: আলাউদ্দিন
  3. mahdihasan990@gmail.com : Mahdi Hasan : Mahdi Hasan
  4. najmulhossin2050@gmail.com : Najmul Hossain : Najmul Hossain
  5. sz.rony766@gmail.com : শহীদুজ্জামান রনী। : Sz rony
মেঘনায় নৌযানে চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার জুয়েল - দৈনিক আজকের মেঘনা
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মেঘনায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত। মটর চালকলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন।  ডেমরা আ.লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক নোমানীকে হত্যা চেষ্টার মামলায় কুখ্যাত কালু মোল্লা কারাগারে হোমনায়  চাচা কর্তৃক ভাতিজি  ধর্ষণ, প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২ মেঘনায় নারী স্বনির্ভরতা অর্জনে উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত। সংবাদিক ইমরুলের নামে পরিকল্পিত অপপ্রচার সংবাদিক মহলের নিন্দা। হারিয়ে যাওয়া ৯ ভরি ১৪ আনা স্বর্ণালংকার মেঘনা থানা পুলিশ কর্তৃক উদ্ধার। রাজাপুরে অসহায় সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরন করেছেন ইঞ্জিনিয়ার আবুল কাসেম সীমান্ত মেঘনায় ঈদ উপহার বিতরণ করেন খন্দকার বাতেন।

মেঘনায় নৌযানে চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার জুয়েল

মোঃ আলাউদ্দিন
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ, ২০২১
  • ২২৩ বার পঠিত

কুমিল্লা মেঘনা উপজেলার চারপাশেই বহমান নদীপথ। এ নৌপথে চলাচল করে বালুবাহী বাল্কহেড, মাছ ধরার ট্রলার, পণ্যবাহী ট্রলারসহ বিভিন্ন প্রকারের নৌযান। দীর্ঘ দিন ধরে একটি প্রভাবশালী মহল প্রকাশ্যে মেঘনার নৌপথে চলাচলকারী নৌযান থেকে প্রতিদিন চাঁদাবাজি করে যাচ্ছে। চাঁদাবাজি নিরসনে মেঘনা থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান এর বিত্তিতে ২৯ মার্চ সোমবার মোঃ জুয়েল নামক একজনকে আটক করেছে মেঘনা থানা পুলিশ। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মেঘনা থানার এসআই মোঃ নাজিম উদ্দিন ফোর্স নিয়ে গতকাল ২৯ মার্চ সোমবার সন্ধ্যা ৫টায় মেঘনা উপজেলা রাধানগর ইউনিয়নের লক্ষনখোলা দক্ষিনপাড়া গ্রামের মোঃ শফিক মিয়ার পুত্র মোঃ জুয়েল (২২) কে মেঘনা নদীর শাখা পাড়ারবন্দ ব্রিজের নিচে থেকে গ্রেফতার করেন।

এসআই মোঃ নাজিম উদ্দিন জানান, মেঘনা নদীর শাখা পাড়ারবন্দ ব্রিজের নিচে সিলেট হইতে দাউদকান্দি গামী সিলেকশান বালু বোঝাই, বোটে অবস্তানরত লোকজনদের মারধর করিয়া জোর পূর্বক টাকা আদায় করতেছে এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে জুয়েলকে গ্রেফতার করি এবং অপর আসামী মোঃ ফাহিম (২১) ইঞ্জিল চালিত নৌকা নিয়া পালাইয়া যায়, সকালে তাকে কুমিল্লা কোর্টে প্রেরণ করা হয়। ভুক্তভোগীরা জানায়, মেঘনার শাখা নদীর ব্রিজের নিচ দিয়ে যাওয়ার পথে, মাছ ধরার ছোট ট্রলার দিয়ে ওই পথে চলাচলকারী নৌযান থেকে অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করা হয়, এই পথে চললে চাঁদা দিতে হবে এটা জানা তাই আগে থেকেই আমরা টাকা রেডি রাখি , টাকা দিতে দেরি হলেই মারধরের শিকার হই, মেঘনার মানিক্কার চর ও পাড়ারবন দুটি পয়েন্টে ভোর ৬টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত, প্রতিটি ট্রলার থেকে ৩০০/৫০০ টাকা ও বালুবাহী বাল্কহেড থেকে ১০০০/১৫০০ টাকা করে উত্তোলন করা হয়। সংবাদ প্রকাশের ভিত্তিতে কিছুদিন বন্ধ থাকলেও পরে পুনরায় চালু করা হয়। এলাকাবাসী জানান প্রভাবশালীদের ভয়ে মুখ খুলে কিছু বলতে পারি না কিন্তু ঘটনা সত্য আমরা চাই এর একটি বিহিত হোক।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নিউজটি শেয়ার করুন :

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইটঃ ২০১৯ দৈনিক আজকের মেঘনা এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized BY LatestNews
Translate »
error

আমাদের লাইক, কমেন্ট শেয়ার করে সাথেই থাকুন