কুলিয়ারচর থানায় অভিযোগ করে বিপাকে পরেছে এক পরিবার।

কিশোরগঞ্জ ঢাকা বিভাগ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রোপনকৃত রোরক্ষেতের চারা তুলে ফেলে দেওয়া ও মারধোর করতে আসাসহ বিভিন্ন হুমকি ধুমকি দেওয়ার অভিযোগে থানায় লিখিত অভিযোগ কয়ায় প্রতিপক্ষের হুমকির মুখে পরে বাড়ি থেকে বের হতে পরছেনা এক পরিবার। উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামের মৃত শমসের আলীর পুত্র প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়া পর্যবেক্ষক গোলাম সারোয়ার রতন (৫৫) অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর আব্বাস আলীর পুত্র মোবারক মিয়া (৫৭), মো. হানিফা মিয়ার পুত্র শরীফ মিয়া (৩০) ও পার্শ্ববর্তী মাটিকাটা গ্রামের মৃত নূর মোহাম্মদের পুত্র ফয়েজুল্লাহ মিয়া (৪৮) দের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তার বিরোধ চলে আসছে। উক্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্রাদি নিয়ে গত ২৯ জানুয়ারি সকাল ১১ ঘটিকার দিকে গোলাম সারোয়ারের আবাদি জমিতে অনাধিকার প্রবেশ করিয়া জমিতে রোপনকৃত নতুন বোরো ধানের চারা তুলে ফেলে দেয়। এ সময় বাঁধা নিষেধ দিতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রাদি নিয়ে তাকেসহ তার পরিবারের সদস্যদের মারতে আসে ও বিভিন্ন প্রকার হুমকি দেয় । দীর্ঘ দিন ধরেই প্রতিপক্ষের লোকজন গোলাম সারোয়ারের জায়গা জমি জোর জবরদখল করার পায়তারা করে আসছে তারা। এছাড়া তার সন্তানরা কি ভাবে লেখাপড়া করে তাও দেখে নিবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে । এ ঘটনায় গত ৩১ জানুয়ারী রোববার বিকালে গোলাম সারোয়ার বাদী হয়ে কুলিয়ারচর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পর গত ১ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকালে ফরিদপুর ইউনিয়নের দ্বায়িত্বে থাকা কুলিয়ারচর থানার কর্তব্যরত অফিসার এস আই মো. নয়ন মিয়া ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। থানায় অভিযোগ করায় প্রতিপক্ষের লোকজন ভীষণ ভাবে ক্ষিপ্ত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে চলে যাওয়ার পর থেকেই প্রতিপক্ষ গোলাম সারোয়ার সহ তার পরিবারের সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে। প্রতিপক্ষের হুমকির মুখে বিপাকে পরে বাড়ি থেকে বেড় হতে সাহস পারছেনা গোলাম সারোয়ারের পরিবারের সদস্যরা। বিষয়টি তাৎক্ষনিক এস আই মো. নয়ন মিয়াকে মোবাইল ফোনে অবগত করেন বাদী গোলাম সারোয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *